গল্প ও কবিতা

নির্বাসন

খাদিজা আরুশি আরু

তুমি আমায় একটু ভালোবাসবে মা?
একটু আদর করে বুকে জড়িয়ে ধরবে?
বাবার সঙ্গে না লড়ে, আমায় বকবে?
আমি কিচ্ছুটি বলবো না দেখো-
চুপটি করে, তোমার বকা হজম করবো।
বাবা যখন অফিস থেকে ফেরে,
তখন জেনে বুঝে ভুল করবো আমি।
তুমি আর বাবাকে বকার সুযোগই পাবে না।
আমাকে বকে বকেই-
তোমার দিন পার হবে।
তুমি যখন বাবাকে বকো,
তখন বাবাও তোমায় বকে দেয়।
আমি তোমাকে খুব ভালোবাসি মা!
বাবাকেও বাসি তবে তোমার থেকে কম।
বাবা তোমায় বকলে আমার যে,
খুব কষ্ট হয়,কান্নাও পায়!
জানো মা,
আমি কাঁদতে ভুলে গেছি।
এখন আর তোমাদের লড়াই দেখে,
আমি কাঁদি না বরং হাসি।
কেনো জানো?
এ তো এখন আমার নিত্যদিনের রুটিন।
আমি একদিন নির্বাসনে চলে যাবো দেখো-
সেদিন তোমারা আমায় খুঁজবে,
কিন্তু আমি ধরা দেবো না।
তোমরাও আমায় পাবে না।
কেউ হারাতে চাইলে কি তাকে-
খুঁজে বের করা যায়!
যায় না-
তোমরাও পাবে না আমায়।
আমি যেমন ধুঁকে ধুঁকে মরেছি-
আমায় হারিয়ে তোমরাও কষ্টে মরবে।
আচ্ছা মা,
আমি যেদিন হারিয়ে যাবো,
সেদিনও কি তোমরা ঝগড়া করবে?
আমার জন্য বাবা আর তুমি-
গলাগলি করে কাঁদবে না?
একটু কেঁদো মা,
একটুখানি!
আমার অস্তিত্ব না হোক,
আমার ইতি যেনো-
তোমাদের ঝগড়া বন্ধের,
কারন হয়ে থেকে যায় চিরজীবন!
এ পাড়ে না হোক-
ও পাড়ে থেকে যেনো,
তোমাদের ঝগড়াহীণ মুহূর্তের-
স্বাক্ষী হই এ আমি।

সম্পূর্ণ লেখাটি পড়ুন

এই ধরনের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close