গল্প ও কবিতা

একদিন

লেখকঃ মতিউর রহমান চৌধুরী।

হে আমার প্রেমিকারা দেখিস একদিন,
অথবা একটি মুহুর্তের জন্য,
আমিও তোদের নগরের বাসিন্দা হবো।
চারিদিকে গোলাপের তোড়া,
মাঝে শরাবের বোতল ও একটা গ্লাস।
চুমুকেই বলে দিব তোদের প্রতারণার গল্প।
সেদিন মাথা নুয়ে দু’ফোটা অশ্রু জলাঞ্জলি দিয়ে,
ঘরে ফিরিস অষ্টপ্রহরের দরজা দিয়ে।
যে সকল প্রিয়তমারা প্রতারণার চাবি হাতে নিয়ে,
হৃদয় ক্ষত-বিক্ষত করে পাঁজরে চির ধরিয়েছিল।
তারা ভেসে যাবে বিষাদের স্রোতে।
প্রেমিকা হারিয়ে প্রেমিক নিথর দেহের সঙ্গে,
সঙ্গমে বিষাদের দু’ফোটা জল ঢেলে ভেসে উঠে।
নগরে নগরে তখন হরতাল থাকবে,
কার্ফু ভঙ্গ করে বুলেট বুকে নিয়ে কালবেলায়,
বিদ্রোহ ঘোষণা করে রাজপথে লুটিয়ে পড়বে।
সে বিকেলে নিথর দেহে চারিপাশে ফুলের বদলে,
থোকা থোকা রক্তের তোড়া বিছিয়ে থাকবে।
প্রেমিকাদের নোনা জলে,
তৃপ্ত হবে বোকা পতিরা।
শশানে জ্বলবে চিতা,
গোরস্থান এ হবে কবর।
কফিনে পুঁতে রাখা হবে বিষাদের প্রেমিক দেহ।
প্রতারণায় নিঃস্ব করে,
ডায়নীরা মুহুর্তেই সঙ্গোম করে অন্য পুরুষ,
দুঃখিত তাদের বিত্তবান স্বামীর দেহ নিয়ে।
জনাব ভদ্রপল্লীর পুরুষগণ,
আপনাদের সুন্দরী নারীগণ,
প্রথম যৌবনে দরিদ্র প্রেমিকদের পানি গ্রহণ করেছিল।
কবি মৃত্যু হয়েছিল সেই বিষাক্ত নোনাজলে।
অথবা,
সুবোধ বালকটি বিষাক্ত নেশা সেবন করে,
তোমাদের নগরের আবর্জনা হয়েছিল ক্ষয়ে ক্ষয়ে।
সেও একদিন মরার পর ভদ্রপল্লীর বাসিন্দা হবে।

সম্পূর্ণ লেখাটি পড়ুন

এই ধরনের সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close